মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ০৫:১৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
গাজীপুরে অবৈধ গ্যাস ব্যবহারের দায়ে ৮ জনকে ৩ লাখ ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও ১০০ বাড়ির ২০০ চুলা জব্দ তাড়াশে পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে ফুটবল টুনামেন্ট অনুষ্ঠিত নকলায় আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন ২৮ জেলায় ছড়িয়ে পড়ল রাসেলস ভাইপার শেরপুর নকলায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মহিলা নিহত অনিয়ম ও দূর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন বেবিচকের সাবেক উপপরিচালক রাশিদা সুলতানা কাপাসিয়ার টোক রণেন্দ্র স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন: যারা অভিভাবক প্রতিনিধি হলেন গাজীপুরে পূর্ব শত্রুতার জেরে সাংবাদিকে প্রাণনাশের হুমকি, গাছপালা কেটে ব্যাপক ক্ষতিসাধন নকলা কল্যাণ ফোরামের উদ্যোগে  তিন শতাধিক পরিবার পেল কোরবানির মাংস নকলায় বালির নিচ থেকে ১ কৃষকের মরদেহ উদ্ধার

ঝিনাইগাতীর কান্দুলী আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শন করলেন উপজেলা চেয়ারম্যান নাইম | সময়ের দেশ

মোঃ বিল্লাল হোসেন, ঝিনাইগাতী (শেরপুর) প্রতিনিধি :
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৯ জুন, ২০২২
  • ১০৩ বার পড়া হয়েছে

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে কুঞ্জবিলাশ কান্দুলী আশ্রয়ন প্রকল্পের বাসিন্দাদের মানবেতর জীবনযাপন: তাদের সার্বিক খোঁজখবর নিতে প্রকল্পটি পরিদর্শন করলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এসএম আব্দুল্লাহেল ওয়ারেজ নাইম।

১৯ জুন রোববার দুপুরে উপজেলার ধানশাইল ইউনিয়নের কান্দুলী গ্রামে কুঞ্জবিলাস কান্দুলী আশ্রয়ণ প্রকল্পটি পরিদর্শন করেন তিনি। প্রায় দুই যুগের ব্যাবধানে এ প্রকল্পে নির্মানাধীন সবকটি ব্যারাক জরাজীর্ণ।প্রত্যেক বছরের বর্ষাকালে ঘুম হারাম হয়ে যায় আর বৃষ্টি হলে তো কথায় নেই সবকটি ঘর জরাজীর্ণ থাকায় সারারাত জেগেই কাটাতে হয় কুঞ্জবিলাশ কান্দুলী আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাসিন্দাদের। আবার অনেকেই বৃষ্টিতে পলিথিন মুড়িয়ে ঘরের ভেতরে বসে থাকেন তারা।

১৯৯৯ সালে উপজেলার ধানশাইল ইউনিয়নের কান্দুলী গ্রামে নির্মাণ করা হয় আবাসন প্রকল্পটি। তৎকালীন সময়ে কান্দুলী আশ্রয়ণ প্রকল্প’টি বাস্তবায়ন করেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। বাস্তবায়নকারী ইউনিটঃ ৩৭ এস.টি ব্যাটালিয়ন মোমেনশাহী সেনানীবাস। কুঞ্জবিলাস কান্দুলী আশ্রয়ণ প্রকল্পের ৬’টি ব্যারাক গড়ে তোলে ৬০’টি কক্ষ নির্মাণ করা হয় সেখানে । আর নাম রাখা হয় কুঞ্জবিলাস কান্দুলী আশ্রয়ণ প্রকল্প।

এ প্রকল্পে রয়েছে , একটি মসজিদ,কবরস্থান,পুকুর,সমবায় সমিতি ,কমিউনিটি সেন্টারসহ টিনের ছয়টি ব্যারাকে দশটি করে কক্ষ। ওই সময় আড়াই শতাংশ জমি সহ প্রতিটি ভূমি হীন পরিবারকে বরাদ্দ দেয়া হয় ১’টি করে ঘর। প্রত্যেক ব্যারাকে গরিব অসহায় হতদরিদ্র ভূমিহীন ছিন্নমূল পরিবারদের বসবাসের জায়গায় হয় সেখানে।

কুঞ্জবিলাস কান্দুলী আশ্রয়ন প্রকল্প নির্মাণকালের প্রায় ২৩ বছর পেরিয়ে যাচ্ছে। সংস্কার না হওয়ার ফলে নানা কষ্ট নিয়ে বসবাস করছেন তারা। সেখানে বসবাসকারী বাসীন্দারা বেশির ভাগ শ্রমজীবী। কেউ অন্যের বাড়িতে শ্রম দেন আবার অনেকেই কৃষি কাজে জীবীকা নির্বাহ করে সাংসারিক খরচা যোগান দেন তারা।

আজ দুপুরে কুঞ্জবিলাশ কান্দুলী আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শন শেষে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এসএম আব্দুল্লাহেল ওয়ারেজ নাইম সাংবাদিকদের বলেন বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অবদান, কুঞ্জবিলাস কান্দুলী আশ্রয়ণ প্রকল্পটি সেনাবাহিনীর মাধ্যমে সংস্কার হবে। দ্রুতই এ কাজ শুরু হবে বলেও জানান তিনি।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছাঃ লাইলী বেগম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ উমর আলী,প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মোঃ মজিবর রহমান,ধানশাইল ইউনিয়ন ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক, কান্দুলী আশ্রয়ণ প্রকল্পের সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন প্রমুখ।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৪৭ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০৪ অপরাহ্ণ
  • ১৬:৪১ অপরাহ্ণ
  • ১৮:৫৩ অপরাহ্ণ
  • ২০:২০ অপরাহ্ণ
  • ৫:১২ পূর্বাহ্ণ
©2020 All rights reserved
Design by: POPULAR HOST BD
themesba-lates1749691102