বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ০৪:৫১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কাপাসিয়ার সিঙ্গুয়ায় কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা প্রদান  নকলায় শিক্ষার্থীরা পেলো সংসদ উপনেতা মতিয়া চৌধুরীর ঈদ উপহার সরকারী স্কুলের ভূমি অধিগ্রহণের টাকা আত্নসাৎ ফেরত না দিতে ভিন্ন কৌশল শ্রীবরদীর বন বিভাগে ৯ কোটি টাকা হরিলুটের অভিযোগ, বন কর্মকর্তার নামে মামলা নান্দাইলে সাংবাদিকের উপড় সন্ত্রাসী হামলা, হাসপাতালে ভর্তি কাপাসিয়ার টোকে মসজিদভিত্তিক শিশু শিক্ষার মনিটরিং কমিটির সভা অনুষ্ঠিত  বিরামপুরে সমাজসেবা অধিদপ্তরের চিকিৎসা সহায়তার চেক বিতরণ করেছেন এমপি শিবলী পুলিশ পিটিয়ে দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি ছিনতাই মামলায় কাপাসিয়া টোক ইউপি চেয়ারম্যান জলিল গ্রেফতার অনিয়মের সংবাদ প্রকাশের পর পরিবেশ অধিদপ্তর গাজীপুরের ডিডি নয়নের বদলির আদেশ দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন,বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মো.সাইফুল ইসলাম।

কাপাসিয়ার রাউৎকোনা পরীক্ষা হলে সিলিং ফ্যান খুলে পড়ে ছাত্রী-শিক্ষক আহত

মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, কাপসিয়া ব্যুরো প্রধানঃ
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৮ মে, ২০২৩
  • ১৭২ বার পড়া হয়েছে

 

জাহাঙ্গীর আলম (ব্যুরো প্রধান) কাপাসিয়া (গাজীপুর) ঃ

কাপাসিয়ার রাউৎকোনা ফাজিল মাদ্রাসায় দাখিল পরীক্ষার প্রশ্নপত্র দেওয়ার প্রস্তুতি চলছিল। হঠাৎ সিলিং ফ্যানটি বেঞ্চের ওপর পড়ে যায়। তাতে জান্নাত নামে একজন পরীক্ষার্থী ও মনির হোসেন নামে একজন শিক্ষক আহত হন। গাজীপুরের কাপাসিয়া সদরের রাউৎকোনা ফাজিল মাদ্রাসা পরীক্ষা কেন্দ্রে আজ সোমবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

ফ্যান পড়ে আহত দুজন হলেন ওই কেন্দ্রের পরীক্ষার্থী মোছা. জান্নাত এবং কেন্দ্র পরিদর্শক মো. মনির হোসেন। জান্নাত কাপাসিয়ার খিলগাঁও বি কে দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষার্থী। মনির হোসেন একই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক। তিনি রাউৎকোনা ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে পরিদর্শকের দায়িত্ব পালন করছিলেন।

রাউৎকোনা ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রের সচিব জয়নাল আবেদীন বলেন, দাখিল পরীক্ষা চলাকালে সিলিং ফ্যান পড়ে আহত শিক্ষার্থীকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে কেন্দ্রে নিয়ে আসা হয়। সে খুব বেশি আঘাত পায়নি। পরে পরীক্ষায় অংশ নিতে পেরেছে। আহত শিক্ষক ও কেন্দ্র পরিদর্শক মনির হোসেনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য শহীদ তাজ উদ্দিন আহম্মেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন।

ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে কেন্দ্র সচিব জয়নাল আবেদীন বলেন, টিনশেড ভবনের একটি কক্ষে দাখিল পরীক্ষার প্রশ্নপত্র দেওয়ার প্রস্তুতি চলছিল। সকাল ৯টা ২৮ মিনিটে সিলিং ফ্যানটি নিচে পড়ে যায়। তাতে পাখার আঘাতে শিক্ষক ও শিক্ষার্থী আহত হন। ফ্যান ঝোলানোর রডটি জং ধরে দুর্বল হয়ে ভেঙে পড়ে। তাৎক্ষণিকভাবে ইলেকট্রিশিয়ান এনে ফ্যান ঝোলানো হয়। নিরাপত্তার জন্য বাকি ফ্যানগুলো পরীক্ষা করা হয়েছে।

কাপাসিয়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুস সালাম বলেন, সিলিং ফ্যান পড়ে আহত শিক্ষার্থী চিকিৎসা নিয়ে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। আহত শিক্ষকের পরিবর্তে অন্য এক শিক্ষককে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। পরীক্ষার আগেই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার উপস্থিতিতে কেন্দ্রের বৈদ্যুতিকসহ অন্যান্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কেন্দ্র সচিবদের বলা হয়েছিল। তবু এমন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটে গেছে। পরে আরও সচেতনভাবে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৪৬ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০২ অপরাহ্ণ
  • ১৬:৩৮ অপরাহ্ণ
  • ১৮:৫১ অপরাহ্ণ
  • ২০:১৭ অপরাহ্ণ
  • ৫:১০ পূর্বাহ্ণ
©2020 All rights reserved
Design by: POPULAR HOST BD
themesba-lates1749691102